Categories
News

বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ পেনাল্টির রেকর্ড গড়েছে আর্জেন্টিনা


এবার কাতার বিশ্বকাপ গড়েছে অনেক রেকর্ড। এর মধ্যে বহুল চর্চিত রেকর্ডটি হলো পেনাল্টির বিশ্বরেকর্ড। টিম মেসির জয়ের অন্যতম নিয়ামক ছিল এই পেনাল্টি। কারণ এর আগে কোনো বিশ্বকাপই এক দলের পক্ষে এতো ধারাবাহিক পেনাল্টি দেখেনি। ফাইনাল ম্যাচটাই যেন হয়ে উঠেছিল পেনাল্টি নির্ভর ম্যাচ। প্রথমার্ধে আর্জেন্টিনার একটি পেনাল্টির পর দ্বিতীয়ার্ধে দুটি পেনাল্টি পায় ফ্রান্স।

বলাই বাহুল্য তিনটি পেনাল্টি থেকেই গোল করেন দুই দলের সেরা খেলোয়াড় লিওনেল মেসি ও কিলিয়ান এমবাপ্পে। বিশ্বকাপের ইতিহাসে এবারই এক টুনার্মেন্টে সর্বোচ্চসংখ্যক ৫টি পেনাল্টি পেয়েছে আর্জেন্টিনা। এই রেকর্ডের নিকটতম প্রতিদ্বন্দী হিসেবে আছে ১৯৭৮ সালের নেদারল্যান্ডস ও ১৯৬৬ সালের পর্তুগাল দলের নাম।

কাতার বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনা ধারাবাহিকভাবে পেনাল্টি পেয়েছে। সৌদি আরবের বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচ থেকে শুরু করে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে মহাকাব্যিক ফাইনাল পর্যন্ত মোট সাত ম্যাচে আর্জেন্টিনার পক্ষে যাওয়া পাঁচ পেনাল্টির প্রতিটিই ছিল আলাদা আলাদা ম্যাচে। যা বিশ্বকাপের ইতিহাসে প্রথম।

এমনকি কোয়ার্টার ফাইনাল, সেমিফাইনাল আর ফাইনালে একটি করে মোট তিনটি পেনাল্টি গেছে আর্জেন্টিনার পক্ষে। কোনো একটি দলের মহাগুরুত্বপূর্ণ এই তিন ম্যাচে তিন পেনাল্টি পাওয়ার ঘটনাও এই প্রথম ঘটলো। প্রতিটি ম্যাচেই পেনাল্টি কিক নেন দলের অধিনায়ক লিওনেল মেসি। এর মধ্যে পোল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচটি ছাড়া বাকি চার ম্যাচেই পেনাল্টি থেকে গোল করেছেন তিনি।

এদিকে আশ্চর্যের বিষয় হচ্ছে, কাতার বিশ্বকাপেই আর্জেন্টিনা ছাড়া যে দল দ্বিতীয় সর্বোচ্চ পেনাল্টি পেয়েছে তাদের পেনাল্টি সংখ্যা সাকুল্যে দুটি! এই তালিকায় আছে পোল্যান্ড, পর্তুগাল, ইংল্যান্ড এমনকি ফাইনালে দুই পেনাল্টি পাওয়া ফ্রান্সের নামও। এবারের বিশ্বকাপে গ্রুপ পর্বে ১৪টি, রাউন্ড অব সিক্সটিনে ২টি, কোয়ার্টার ফাইনালে ৪টি এবং ফাইনালে ৩টি পেনাল্টি দেওয়া হয়।

বিশ্বকাপ জিতে বাংলাদেশকে ধন্যবাদ দিল আর্জেন্টিনা দল

এবার দিনের পর দিন অকল্পনীয় সমর্থন দিয়ে যাওয়ায় বাংলাদেশকে ধন্যবাদ দিয়েছে সদ্য বিশ্বকাপজয়ী আর্জেন্টিনা। গতকাল রবিবার ১৮ ডিসেম্বর রাতে ৩৬ বছরের খরা কাটিয়ে তৃতীয়বারের মতো বিশ্বসেরার খেতাব জিতেছে মেসি বাহিনী। এমন আনন্দঘন মুহূর্তেও প্রিয় বাংলাদেশি সমর্থকদের ভুলে যায়নি তারা। শিরোপা হাতে তোলার কয়েক ঘণ্টা পরেই আর্জেন্টাইন ফুটবল দলের অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে ধন্যবাদ জানানো হয়েছে বাংলাদেশকে, তথা বাংলাদেশি সমর্থকদের।

আজ সোমবার সকালে সেলেকন আর্জেন্টিনা নামে দলীয় টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে দেওয়া এক পোস্টে বলা হয়েছে, ধন্যবাদ বাংলাদেশ। ধন্যবাদ কেরালা, ভারত, পাকিস্তান। আপনাদের সমর্থন অসাধারণ ছিল। শুধু জাতীয় দলই নয়, স্বপ্নপূরণের দিনে বাংলাদেশকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন অসংখ্য আর্জেন্টাইন নাগরিক। ফেসবুকে ‘ফ্যানস আর্জেন্টিনোস ডে লা সেলেকন ডি ক্রিকেট ডি বাংলাদেশ’ (বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের আর্জেন্টিনার ভক্তরা) নামের গ্রুপটিতে বাংলাদেশি সমর্থকদের প্রতি ধন্যবাদের বন্যা বয়ে যাচ্ছে রোববার থেকে।

এর আগে, বাংলাদেশে মেসি ভক্তদের উন্মাদনার খবর শুনে বিশ্বকাপের মধ্যেই বাংলাদেশিদের দারুণ উপহার দিয়েছিল আর্জেন্টিনা। মেসির হাতে বাংলাদেশের পতাকা যুক্ত একটি ছবি পোস্ট করা হয়েছিল আর্জেন্টাইন ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন প্রফেশনাল ফুটবল লিগের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে। একই ছবি শেয়ার করা হয় প্রফেশনাল লিগের ভেরিফায়েড টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকেও। এতে দেখা যায়, আর্জেন্টিনার জার্সি পরা উল্লাসিত মেসি মাঠের মধ্যে বাংলাদেশের পতাকা হাতে ছুটছেন।

যদিও দেখেই বোঝা যাচ্ছিল, সম্পাদনা (এডিট) করে ছবিতে বাংলাদেশের পতাকা যোগ করা হয়েছে। তবে বাংলাদেশিদের সম্মান জানাতেই এ কাজটি করেছিল খোদ আর্জেন্টাইন ফুটবল ফেডারেশন। আবার, চলতি মাসের শুরুর দিকে ওয়ানডে সিরিজে ভারতকে হারিয়েছিল বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। টাইগারদের ওই জয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন বহু আর্জেন্টাইন।

এ নিয়ে প্রতিবেদন করে আর্জেন্টিনার গণমাধ্যমগুলোও। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্টের পোস্ট ভরে যায় আর্জেন্টাইনদের মন্তব্য। এদিকে মন্তব্যে স্প্যানিশ ভাষার পাশাপাশি বাংলায় ‘আমি তোমাকে অনেক ভালোবাসি’ লেখা ছবি পোস্ট করেন অনেকে। বাংলাদেশ-আর্জেন্টিনার ভ্রাতৃত্বের প্রতীক হিসেবে করমর্দনের ছবিও পোস্ট করেছেন কেউ কেউ।





Source link