ইতিহাসঃ ইউটিউব যেভাবে তৈরি করা হয়েছিল!

বর্তমান সময়ে ইউটিউব একটি তুমুল জনপ্রিয় শব্দ। এখনকার সময়ে ইউটিউবের নাম শুনেন নাই এরকম মানুষ খুব কমই খুঁজে পাওয়া যাবে। তবে ইউটিউব কি এটা আমরা সকলেই সাধারন ভাবে জানি যে একটা ভিডিও প্লাটফর্ম । কিন্তু এই ইউটিউব এর মালিক কে এবং ইউটিউব কেমনে তৈরি হলো। ইউটিউব কারা তৈরি করল। এসকল ইতিহাস হয়তো আমরা অনেকেই জানি না । তাই এই আর্টিকেলের মধ্যে ইউটিউব এর সকল ইতিহাস আমি তুলে ধরব। তো কথা না বলে বিস্তারিত শুরু করা যাক।

ইউটিউব কি ?


ইউটিউব হচ্ছে সারা বিশ্বের তুমুল জনপ্রিয় ভিডিও শেয়ারিং প্লাটফর্ম । বা ভিডিও শেয়ারিং ওয়েবসাইট। ইউটিউব বর্তমানে গান, মুভি, নাটক, নিউজ, টেক ভিডিও, শর্টফ্লিম, ইডুকেশনাল ভিডিও সহ আরো অনেক ধরনের ভিডিও নিয়ে এক বিশাল প্লেস তৈরি হয়েছে।
অ্যালেক্সা র‍্যাংকে গুগল এর পরেই ইউটিউব এর অবস্থান। অর্থাৎ সারা বিশ্বের দ্বিতীয় স্থান অধিকার করে ফেলেছে।

ইউটিউব যেভাবে তৈরি হয়েছে

ইউটিউব এর প্রতিষ্ঠাতা তিন জন । চ্যাড হার্লি , স্টিভ চেন এবং বাংলাদেশের বংশোদ্ভুত জাওয়েদ করিম তারা মূলত সবচেয়ে বড় অনলাইন পেমেন্ট গেটওয়ে পেপ্যাল এ চাকুরি করতেন। তখন ২০০৪ সাল ছিল। তারা তিনজন চিন্তা করে, কি এমন জিনিস তৈরি করা যায়। যে জিনিস সবার কাজে আসে এবং সবার মুখে মুখে থাকে। এবং সারা বিশ্বের প্রায় সকলের জন্য সেটা ব্যবহারের উপযোগী হতে পারে। এই বিষয় তারা মাথায় রেখে সকল চিন্তা করে একসময় ভিডিও শেয়ারিং ওয়েবসাইট তৈরির লক্ষে, ১৪ ই ফেব্রুয়ারী ২০০৫ সালে ইউটিউব প্রতিষ্ঠা করেন । এবং তারা স্কুইয়া ক্যাপিটালিস্ট নামক বিনয়োগকারী সংস্থার মাধ্যমে ২০০৫ সালের নভেম্বর মাসে বিশ্বব্যাপী উন্মুক্ত করে ইউটিউব। তারপর ইউটিউব এর জনপ্রিয়তা দিন দিন অনেক বেশি পরিমানে বাড়তেই থাকে ।

গুগল কিভাবে এবং কবে ইউটিউব এর মালিক হলো ?

২০০৫ সালে ১৪ ফেব্রুয়ারীতে ইউটিউব প্রতিষ্ঠা করেন। ও ২০০৫ সালে নভেম্বর মাসে বিশ্বব্যাপী ইউটিউব উন্মুক্ত করার পর ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করে । তারপর ২০০৬ সালের মধ্যো দিকে” সারা বিশ্বের সবচেয়ে বড় সার্চইঞ্জিন কম্পানী গুগল ইউটিউব কে ১৬৫ কোটি ডলারের বিনিময়ে কিনে নেয়। তারপর থেকে ইউটিউবের মালিক গুগল।

বর্তমানে ইউটিউবের পরিসংখ্যান

ইউটিউব এর ব্যবহার দিন দিন অনেক বেশি পরিমানে বাড়তেই আছে। বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়াগুলির মতো লম্বা সময় ধরে মানুষ ইউটিউব ব্যবহার করে আসতেছে। কেউ কনো তথ্য গুগলে খুঁজার পাশাপাশি ইউটিউবে সার্চ করে। এবং এখনকার সময়ে ইউটিউবে আরো সুন্দরভাবে প্রয়োজনীয় তথ্য পাওয়া যায়।পুরো ইন্টারনেট দুনিয়ার অর্ধেক মানুষ ইউটিউব নিয়মিত ব্যবহার করে থাকে। অর্থাৎ প্রতিমাসে ২ বিলিয়নের ও বেশি মানুষ ইউটিউব নিয়মিত ব্যবহার করে। এবং প্রতিদিনে ৩০ থেকে ৩৫ মিলিয়ন মানুষ ইউটিউব দেখছে। ও প্রতি মিনিটে ৪০০+ ঘণ্টার মতো ভিডিও আপলোড হচ্ছে।

গুগল ইউটিউবের মালিক হওয়ার যে সুবিধা আমরা পাচ্ছি


গুগল ইউটিউব কে কিনে নেওয়ায় আমরা অনেক সুবিধা পাচ্ছি। খুব সহজেই একটি গুগল অ্যাকাউন্ট দিয়ে একটি ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করে সেখানে মানসম্মত ভিডিও আপলোড করে। তারপর মনিটাইজেশন এর মাধ্যমে ইউটিউব থেকে অনেক বড় একটি অর্থ ইনকাম করা যায়। সারা বিশ্ব সহ আমাদের দেশেরেও অনেক বেকারত্ব দূর হয়েছে। যার কারনে অনেকেরই অন্য কোনো চাকরি করতে হচ্ছে না। ভবিষ্যতেও তারা ইউটিউব এর উপর নির্ভর করে কাটিয়ে দিতে পারবে। হয়তো গুগল ইউটিউব কিনে নিলে এটা আশা করা যেত না।

শেষ কথা!

ইউটিউব সম্পর্কিত আমার জানা কিছু ইতিহাস আজকের এই আর্টিকেলে আমি শেয়ার করলাম । আশাকরি আপনারা যারা ইউটিউব এবং ইউটিউবের ইতিহাস সম্পর্কে জানতেন না । তারা হয়তো অনেকটাই আমার এই আর্টিকেলটি পড়ে জানতে পেরেছেন। আর যারা ইউটিউবের ইতিহাস সম্পর্কে আরো বেশি কিছু জানেন। তাহলে আমাদের জানাতে ভুলবেন না।

You May Also Like

মোঃ আনছের আলী

About the Author: মোঃ আনছের আলী

ছোটবেলা থেকেই আকৃষ্ট প্রযুক্তির উপর। ২ জি"র আমল থেকে জাভা বাটন ফোন থেকে ইন্টারনেটে কনটেন্ট ব্রাউজিং শুরু। প্রযুক্তি যতটা আমাকে কাছে টেনে নিয়েছে। হয়তো অন্য কিছু আমাকে এতটা কাছে নিতে পারেনি। ভালোলাগে কঠিন জিনিসের সহজ ব্যাখ্যা করতে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: